Home খবর ছেলেকে মানুষ করতে লড়াই এক মায়ের

ছেলেকে মানুষ করতে লড়াই এক মায়ের

সাড়ে ৬ কিলোমিটার যাওয়া, সাড়ে ৬ কিলোমিটার আসা। কোলে বাঁধা এক বছরের সন্তান। আর এ ভাবেই দিন গুজরানের লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন এক এক মহিলা।তিনি চঞ্চল শর্মা। উত্তরপ্রদেশের নয়ডার বাসিন্দা। একা মা। সেক্টর ৫৯ এবং ৬২-এর মধ্যে টোটো চালান তিনি। প্রতি দিন সকাল সাড়ে ৬টায় টোটো নিয়ে বেরিয়ে পড়েন চঞ্চল। তাঁর এই সফরের নিত্যদিনের সঙ্গী এক বছরের সন্তান অঙ্কুশ।

তাঁর দিন শুরু হয় টোটো চালিয়ে। শেষও হয় টোটো চালিয়েই। সন্তানকে খাওয়ানোর জন্য মাঝে একটু বিরতি।স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর সন্তানকে নিয়ে মায়ের কাছে চলে আসেন চঞ্চল। মাথা গোঁজার ঠাঁই বলতে একটি চিলতে ঘর। চঞ্চলের মা সব্জি বিক্রি করেন। ভাই বাড়িতে থাকেন না। ফলে অঙ্কুশকে দেখাশোনা করার মতো কোনও লোক না থাকায় অগত্যা তাকে নিয়েই টোটো চালাতে হয় চঞ্চলকে।চঞ্চল বলেন, “ছেলেকে স্নান করানোর জন্য মাঝে কিছু সময় বাড়িতে যেতে হয়।

তবে সব সময় সেটা সম্ভব হয় না। তখন টোটোতেই ছেলেকে খাওয়ানোর ব্যবস্থা করে নিই।”দিনে ৬০০-৭০০ টাকা আয় হয় বলে এক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন চঞ্চল। তার মধ্যে ৩০০ টাকা টোটোর কিস্তি দিতে হয় এক বেসরকারি অর্থলগ্নি সংস্থাকে। তবে টোটো চালানো ছেড়ে মুদি দোকান খোলার চিন্তাভাবনা করছেন চঞ্চল। তার জন্য একটু একটু করে টাকাও জমাচ্ছেন টোটো চালিয়ে। চঞ্চল বলেন, “ছেলেকে ভাল ভাবে মানুষ করতে চাই। কিন্তু অর্থাভাবই এখন আমার বড় বাধা।” আর সেই বাধা কাটাতেই হাতে তুলে নিয়েছেন টোটো।

Most Popular

বিশ্বের প্রথম বিদ্যুৎচালিত বিমান উড়ল ওয়াশিংটনের আকাশে

অ্যাভিয়েশন এয়ারক্রাফ্ট নামে ইজ়রায়েলের এক বিমান সংস্থার পরিশ্রমের ফসল এই বিমানটি। প্রথম উড়ানে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩,৫০০ ফুট উপরে ওঠেছিল এটি। সংস্থার প্রেসিডেন্ট তথা সিইও...

রণবীর-দীপিকার ঘর ভাঙছে?

তাঁদের বিয়ে হয়েছে চার বছর হতে চলল। বলিউডে যে সব সুখী দম্পতি রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে অন্যতম এই জুটি। তবে ইদানীং না কি, তাঁদের সম্পর্কে...

হৃতিক-সইফ বনাম আবীর, দেব, পরম কোন ছবি এগিয়ে, কী বলছেন হল মালিকেরা

প্রতিটি ছবিতেই আছে ইন্ডাস্ট্রির বড় নাম। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, দেব, আবীর চট্টোপাধ্যায়, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়-সহ আরও অনেকে। তবে কি এই পুজোয় হৃতিক-সইফের সঙ্গে টক্কর...

তরুণীর কাছ থেকে প্রথম বারের খাবারের দাম চাইলেন যুবক দ্বিতীয় বার ডেটে যেতে নারাজ তাই

এলিজা নামক ওই তরুণ পেশায় বিমা সংস্থার কর্মী। এক ডেটিং অ্যাপের মাধ্যমে লুসি নামক ওই তরুণীর সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়। বেশ কিছু দিন কথা...

Recent Comments