Home আজকের খবর ফের কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ

ফের কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ

আবাস যোজনায় ঘর পাইয়ে দেওয়ার নাম করে ফের কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ উঠল মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর-১ ব্লকের কুশিদা গ্রাম পঞ্চায়েতে। ওই গ্রাম পঞ্চায়েতের হোসেনপুর বুথের সদস্যার স্বামী তাদের কাছ থেকে ৩০ হাজার টকা কাটমানি নিয়েছেন বলে প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন দুই উপভোক্তা। তাদের অভিযোগ, ৩০ হাজার টাকা কাটমানি নেওয়ার পর তারা দুই কিস্তির টাকা পেয়েছেন। কিন্তু তৃতীয় কিস্তির টাকা না মেলায় তারা ঘর সম্পূর্ণ করতে পারছেন না। তৃতীয় কিস্তির টাকা পেতে আবারও তাদের কাছে কাটমানি চাওয়া হচ্ছে। কাটমানি না দিলে তারা তৃতীয় কিস্তির টাকা পাবেন না বলে তাদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলেও প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। প্রসঙ্গত মাস দুয়েক আগেও ওই বুথের সদস্যা আরাধনা পোদ্দারের স্বামী অলোক পোদ্দারের বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ প্রশাসনের কাছে জানিয়েছিলেন এক উপভোক্তা সেহেনা বিবি। তারপর তার বিরুদ্ধে ফের কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ জানিয়েছেন ওই বুথেরই দুই উপভোক্তা আরিফুল ইসলাম ও গুনো শর্মা। অভিযোগকারী আরিফুল ইসলাম বলেছেন,”তিনি সরাসরি অলক পোদ্দারের হাতেই ৩০০০০টাকা দিয়েছিলেন।হুমকি দেওয়া হতো টাকা না দিলে ঘর পাবে না।গরিব ক্ষেতমজুর তিনি।প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করেছেন তার টাকাটা যাতে ফেরত পান।”
আরেক অভিযোগকারী গুনো শর্মাও ওই একই অভিযোগ করেছেন।তিনি বলেছেন,”তাদের দুরবস্থার সুযোগ নিয়ে,হুমকি দিয়েছেন অলক পোদ্দার।তিনি ও তার টাকা ফেরত চান।”
অভিযোগকারী উপভোক্তারাও তৃণমূল সমর্থক। গরিব মানুষদের কাছ থেকে কাটমানি নেওয়ায় ক্ষুব্ধ এলাকার অধিকাংশ তৃণমূলের নেতা-কর্মী। এতে দলের বদনাম হচ্ছে বলেও সরব হয়েছেন তারা।
তৃণমূলেরই একাংশের সূত্রে খবর, এলাকার দাপুটে সিপিএম নেতা অলোক পোদ্দার গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের পরেই শাসকদলে যোগ দেন। তার স্ত্রী সিপিএম থেকে জয়ী হলেও তিনিও শাসকদলে যোগ দেন। কিন্তু তিনি এলাকার তৃণমূল কর্মীদের গুরুত্ব না দিয়ে সিপিএমকেই গুরুত্ব দিচ্ছেন, এমন অভিযোগও উঠেছে। কিন্তু এলাকায় তার এমনই দাপট যে, কেউ তার বিরুদ্ধে মুখ খোলার সাহস পান না। স্থানীয় পুরনো তৃণমূল কর্মীরাই জানান, এলাকার বহু মানুষের কাছে আবাস যোজনার ঘর পাইয়ে দেওয়ার নাম করে ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা করে কাটমানি নিয়েছেন অলোক পোদ্দার। সাহস করে সেহেনা বিবি অভিযোগ জানানোয় তার স্বামীকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। প্রতিবাদ করায় এলাকার কয়েকজন তৃণমূল কর্মীকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। তারপরেও সাহসে ভর করে ফের অভিযোগ জানিয়েছেন দুই উপভোক্তা। এবার তাদেরও মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তারা। কিন্তু ঘর সম্পূর্ণ করতে না পেরে বাধ্য হয়েই তারা প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন।
স্থানীয় কয়েকজন তৃণমূল নেতারা জানান, অলোক পোদ্দার এক পা শাসকদলে আর এক পা রয়েছে বিজেপিতে। আর শাসকদলের নেতাদের একাংশের ছত্রছায়ায় থেকে যা খুশি তাই করছেন। মুখ্যমন্ত্রী, জেলা তৃণমূল সভানেত্রী মৌসম নুর কাটমানি না নেওয়ার বিষয়ে ও দুর্নীতি বন্ধে বারবার বার্তা দিচ্ছেন। কিন্তু দুর্নীতিগ্রস্থ কিছু নেতার জন্য দলের বদনাম হচ্ছে।

তৃণমূলের জয় হিন্দ বাহিনীর কুশিদা অঞ্চলের দায়িত্বে থাকা মোহাম্মদ চঞ্চল বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন।তিনি বলেছেন,” কিছু দুর্নীতিগ্রস্ত মানুষ চাইছে দলের ছবি খারাপ করতে।এরা চাইছে একুশের ভোটে তৃণমূল হেরে যাক।কিন্তু ব্লক নেতৃত্বরা সব জেনেও এদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না।কারণ তারাও এই কাটমানির কমিশন পাচ্ছে।”

ফের কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ ( মালদা )

ফের কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ ( মালদা )

Gepostet von ACN Life News am Sonntag, 13. September 2020

এদিকে বারবার অভিযোগ জানানোর পরেও কেন প্রশাসনের তরফে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না সেই অভিযোগও তুলেছেন তৃণমূলের একাংশের পাশাপাশি বিরোধীরা। প্রশাসন সক্রিয় না হওয়ায় দুর্নীতিগ্রস্থ নেতাদের দাপট বেড়েই চলেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তারা।

এই প্রসঙ্গে হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লকের বিডিও অনির্বাণ বসু বলেছেন,”আমি বহুবার বলেছি সরকারি কোন প্রকল্পের জন্য কেউ টাকা চাইলে যাতে না দেওয়া হয়।আর কেউ এরকম করে থাকলে তার নামে যেন প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানানো হয়।বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।”

এই ঘটনা নিয়ে বিজেপির জেলা সম্পাদক কিষান কেডিয়া তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণ করেছেন।তিনি বলেছেন,”গোটা তৃণমূল দলটাই কাটমানি তে পরিণত হয়েছে।উঁচুতলা থেকে নিচু তলা পুরোটাই দুর্নীতিগ্রস্ত।আমরা কাটমানি নিয়ে কিছুদিন আগে মহকুমা শাসকের কাছে একটি ডেপুটেশন দিয়েছিলাম।কিন্তু বাস্তবে দেখা যাচ্ছে কোনো ফল হচ্ছে না।কারণ কাটমানির ভাগ প্রত্যেকেই পাচ্ছে।”

Most Popular

মালাইকা কি হতে চলেছে মা?

অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠদের কাছে থেকে পাওয়া খবর, মালাইকা অন্তঃসত্ত্বা। আগামী মাসেই লন্ডন পাড়ি দেবেন অর্জুন-মালাইকা। সেখান থেকেই এই খুশির খবর সকলের সঙ্গে ভাগ করে নেবেন...

সমকামিতার ‘অপরাধে’ ৭ মাস কারাদণ্ডের নির্দেশ।

জাভা দ্বীপপুঞ্জের এক বাহিনীতে নিযুক্ত ছিলেন দু’জন। তাঁদের ‘অপরাধ’, তাঁরা দু’জনেই সমকামী। যৌনসম্পর্কে লিপ্তও হয়েছিলেন তাঁরা। সেই কারণে ৭ মাস কারাবাসের নির্দেশ দিল ইন্দোনেশিয়ার...

৮ বছরের বালককে গিলে খেল অতিকায় কুমির!

কুমিরের পেটে গেল ৮ বছরের জুলিয়ো ওতেরো ফার্নান্ডেজ। অসহায় হয়ে দাঁড়িয়ে দেখতে হল মা, বাবা, ভাইবোনেদের।ভাইবোনেদের সঙ্গে নদীর হাঁটুজলে নেমে মাছ ধরছিল জুলিয়ো। ভাইবোনেরা...

স্মার্ট মিটার’ বসতে চলেছে রাজ্যে

বুধবার বিধানসভার প্রশ্নোত্তর পর্বে অরূপ জানান, রাজ্যজুড়ে ৩৭ লক্ষ ‘স্মার্ট মিটার’ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। ধাপে ধাপে সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হবে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বসানো...

Recent Comments