Home আজকের খবর বন্ধুর বউকে গণধ'র্ষণ - চাঞ্চল্যকর ঘটনার সাক্ষী আবার বাংলা

বন্ধুর বউকে গণধ’র্ষণ – চাঞ্চল্যকর ঘটনার সাক্ষী আবার বাংলা

চিত্কার করলে দুই নাবালিকা ছেলেমেয়েকে খুন করা হবে। ঘরে ঢুকে বধূকে এভাবেই ভয় দেখিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্বামীর এক বন্ধু ও তার সঙ্গীর বিরুদ্ধে। মালদহের চাঁচল থানার চন্দ্রপাড়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার এক গ্রামে শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটে। বধূর স্বামী পরিযায়ী শ্রমিক। খবর পেয়ে শিলিগুড়ি থেকে ফেরার পর রবিবার সন্ধ্যায় পুলিশে অভিযোগ জানানো হয়। অভিযোগ পেয়েই পুলিশ অভিযুক্ত প্রতিবেশী দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে। ঘটনার জেরে অসুস্থ বধূকে রবিবার সকালেই চাঁচল সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। অবস্থার উন্নতি হওয়ায় সোমবার দুপুরে অবশ্য বধূকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। বধূর ডাক্তারী পরীক্ষা করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। ঘটনাকে ঘিরে এলাকাজুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।
চাঁচলের এসডিপিও সজলকান্তি বিশ্বাস বলেন, অভিযোগ পেয়েই অভিযুক্ত দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ ( মালদা )

গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ ( মালদা )

Gepostet von ACN Life News am Montag, 17. August 2020

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বধূর স্বামী শিলিগুড়িতে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করেন। লকডাউনে কাজ না থাকায় বাড়ি ফিরে এসেছিলেন। বাড়িতে স্ত্রী ছাড়াও রয়েছে চার বছরের ছেলে ও দু বছরের মেয়ে। বাড়ি বলতে ভাঙাচোরা একটি ঘর, নড়বড়ে দরজা। সংসারের হাল ধরতে দিন কয়েক আগে তিনি ফের শিলিগুড়িতে ফিরে যান।

অভিযোগ, শনিবার রাতে স্বামীর এক বন্ধু ও তার সঙ্গী ঘরের দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকে। বধূ কিছু বুঝে ওঠার আগেই দুই শিশুর গলায় তারা ছুরি ধরে বলে অভিযোগ। চিত্কার করলে তাদের খুনের হুমকি দিয়ে বধূকে ধর্ষণ করে দুই যুবক বলে অভিযোগ। প্রতিবেশী দুই যুবকই বিবাহিত। তারা মদ্যপ ছিল বলেও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। লজ্জায় বধূ প্রথমে প্রতিবেশীদের কাউকে কিছু জানাননি। ফোন করে শিলিগুড়িতে স্বামীকে ঘটনার কথা জানান তিনি। এরপর বিকেলে বাড়ি পৌঁছানোর পর পুলিশে অভিযোগ জানান স্বামী। তারপর রাতেই অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়।

প্রতিবেশীদের সূত্রেই জানা গিয়েছে, ধৃতদের মধ্যে এক যুবকের বিরুদ্ধে আগেও অসামাজিক কাজকর্মের অভিযোগ রয়েছে। তার স্বভাবচরিত্রও ভালো নয়। এলাকায় একবার সালিসি ডেকে তার মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছিলেন বাসিন্দারা। ফলে ধৃতদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন প্রতিবেশীরাও।

বধূর স্বামীও এদিন চাঁচল সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে দাঁড়িয়ে বলেন, ওদের কঠোর সাজা চাই। নইলে এরা সুযোগ পেলে আবার অন্য কারও সর্বনাশ করবে।

Most Popular

ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবল হাঙ্গামার কারণে বড় শাস্তি হল দুই ক্লাব আধিকারিকের

আধিকারিক ১৭৪ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছিলেন।দু’দলের সমর্থকদের মারামারিতে জড়িয়ে পড়ার একাধিক ভিডিয়ো দেখা যায়।ইন্দোনেশিয়ার ফুটবল মাঠে সমর্থকদের হাঙ্গামার কারণে মৃত্যুর ঘটনায় বড় শাস্তি পেলেন...

জলের বোতলে অ্যাসিড পান করে সঙ্কটজনক শিশু, হাত জ্বলে গেল আর এক খুদের

গত ২৭ সেপ্টেম্বর পরিবারের এক সদস্যের জন্মদিন উদ্‌‌যাপন উপলক্ষে ওই রেস্তরাঁয় গিয়েছিলেন মহম্মদ আদিল নামে এক ব্যক্তি। তাঁর অভিযোগ, জলের বোতল দেন রেস্তরাঁর এক...

সবুজ বেনারসি ও গা ভর্তি গয়নায় সাজলেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, শাড়ির দাম শুনলে মাথা ঘুরে যাবে

চট্টোপাধ্যায়কে প্রতিটা সাজেই এত সুন্দর দেখায় যে, তা দেখে প্রেমে পড়ে যান অনুরাগীরা। আর তা হবে না কেন? অভিনেত্রীর সৌন্দর্যের কদর তো করতেই হবে।...

মাত্র ৬৯৯এ পেয়ে যান বার্বিকিউ, ইন্ডিয়ান, চাইনিজ, রকমারি ডেজার্ট। সব মিলিয়ে ৪০রকমের খাবার পেয়ে যাবেন আপনি।

পুজোয় ডান হাতের কাজ বন্ধ রাখা যায় না। ভোজনপ্রিয় বাঙালির কাছে এটা প্রায় দুঃসাধ্য। যাঁরা সারা বছর কড়া ডায়েটে থাকেন, তাঁরাও এই কটা দিন...

Recent Comments