Home Malda হরিশ্চন্দ্রপুর ধর্ষণ কাণ্ডে শুরু রাজনৈতিক তরজা, নিগৃহীতার পরিবারকে প্রাণ নাশের হুমকি

হরিশ্চন্দ্রপুর ধর্ষণ কাণ্ডে শুরু রাজনৈতিক তরজা, নিগৃহীতার পরিবারকে প্রাণ নাশের হুমকি

হরিশ্চন্দ্রপুর, ৯ অগাস্ট : মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর ধর্ষণ কাণ্ডে ফের শুরু রাজনৈতিক তরজা । ধর্ষক গ্রেপ্তার হওয়ার পর ধর্ষণের অভিযোগ না তুললে প্রাণে মারার হুমকি । ঘটনায় পুলিশের দ্বারস্থ নাবালিকার পরিবার । তৃণমূলের নাম করে বিজেপি হুমকি দিচ্ছে পরিবারকে, দাবি জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের । যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি ।

 

 

 

 

এদিকে, নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে ধর্ষিতার পরিবার । অভিযোগ না তোলায় ধর্ষিতার পরিবারকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ । নাবালিকার বাবা পেশায় ভ্যানচালক হওয়ায় রোজগারের তাগিদে তাঁকে বাইরে যেতে হয় । ফলে তাঁর উপর হামলার আশঙ্খা করেছেন পরিবারের লোকেরা । পরিবারের তরফে আবারোও পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন ।

 

 

 

 

অন্য়দিকে, এই ঘটনায় তৃণমূলের তরফে অভিযোগ জানাতে বাধা দেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ তুলেছিল বিজেপি । যদিও তৃণমূল সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে । এমনকি গোটা ঘটনার পিছনে বিজেপির ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে দাবি করেছে তৃণমূল । ফের হুমকির বিষয়টি সামনে আসতেই অসহায় পরিবারটির সঙ্গে দেখা করে তাদের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিয়েছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব ।

 

 

 

 

নাবালিকার মা এদিন বলেন, “আমরা আতঙ্কে বাড়ি থেকে বের হতে পারছি না । কিন্তু স্বামীকে ভ্যান নিয়ে বাইরে যেতে হয় । নইলে খাবার জুটবে না । অভিযোগ তোলার জন্য ক্রমাগত প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হচ্ছে । ওর কিছু হলে আমাদের পথে বসতে হবে । তৃণমূলের নেতারা এসে আশ্বাস দেওয়ায় কিছুটা স্বস্তি পেয়েছি ।”

 

 

 

 

তৃণমূল জেলা সাধারণ সম্পাদক বুলবুল খান এদিন বলেন, “জেলা নেতৃত্বের নির্দেশেই নাবালিকার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছি । তৃণমূলের লোকজন হুমকি দিচ্ছে এটা ঠিক নয় । এটা বিজেপির ষড়যন্ত্র । কিছু লোক তৃণমূলের নাম করে এসব করছে বলে জানতে পেরেছি । পরিবারটিকে আমার ফোন নম্বর দিয়ে এসেছি । কোনও সমস্যা হলে ফোন করে জানাতে পেরেছি । আমরা পরিবারটির পাশে রয়েছি । পাশাপাশি কারা হুমকি দিচ্ছে তাদের চিহ্নিত করে পুলিশকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার আবেদনও করেছি ।”

 

 

 

 

বিজেপি মন্ডল সভাপতি রুপেশ আগরওয়ালা বলেন, “বিজেপি এই ধরনের সংস্কৃতিতে বিশ্বাস করে না । তৃণমূল নেতারা বারবার কেন ধর্ষিতার বাড়ি যাচ্ছে । তারা গিয়ে কি বোঝাতে চাইছে । নিশ্চয় এই নিয়ে তাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ । মানুষ দেখছে তৃণমূলকে ভোটের পর থেকে তারা কি করছে সারা রাজ্যে ।”

 

 

 

 

উল্লেখ্য, হরিশ্চন্দ্রপুরের অষ্টম শ্রেণির পড়ুয়া কিশোরীকে জোর করে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল প্রতিবেশী কিশোরের বিরুদ্ধে । যার জেরে ওই নাবালিকা অন্তঃস্বত্তা হয়ে পড়ে । গত ফেব্রুয়ারি মাসে ঘটনাটি ঘটলেও দিন কয়েক আগে নাবালিকার পরিবার পুলিশের দ্বারস্থ হয় । হুমকি দেওয়ায় এতদিন ভয়ে তারা অভিযোগ জানাতে পারেননি বলে অভিযোগ তুলেছিলেন ধর্ষিতার পরিবার । কয়েকদিন পালিয়ে থাকার পর পুলিশ অবশ্য অভিযুক্ত কিশোরকে গ্রেফতার করে । কিন্তু কিশোর গ্রেফতার হওয়ার পর হুমকির মাত্রা আরও বেড়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ পরিবারের তরফে । অভিযোগ না তুলে নিলে পরিবারটিকে প্রাণে মারা হবে বলে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে ফের পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন নাবালিকার বাবা । খবর পেয়েই রবিবার নাবালিকার বাড়িতে যান জেলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক বুলবুল খান, সঙ্গে ছিলেন তৃণমূল অঞ্চল চেয়ারম্যান সঞ্জীব গুপ্তা । তাদের কাছেও আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন নাবালিকার পরিবার ।

 

হরিশ্চন্দ্রপুর থানা পুলিশ জানিয়েছে অভিযোগ পেয়েছি, পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

 

এর আগে ধর্ষককে আড়াল করার অভিযোগ উঠেছিল স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে। পরে পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ধর্ষককে গ্রেফতার করে পুলিশ। কিন্তু তারপরেও ধর্ষিতার পরিবারকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠছে। যে বা যারাই এটা করছে প্রচন্ড নিন্দনীয় কাজ। পুলিশের এই ব্যাপারে তৎপর হওয়া উচিত। যারা এই ধরনের কাজ করছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

Most Popular

মালাইকা কি হতে চলেছে মা?

অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠদের কাছে থেকে পাওয়া খবর, মালাইকা অন্তঃসত্ত্বা। আগামী মাসেই লন্ডন পাড়ি দেবেন অর্জুন-মালাইকা। সেখান থেকেই এই খুশির খবর সকলের সঙ্গে ভাগ করে নেবেন...

সমকামিতার ‘অপরাধে’ ৭ মাস কারাদণ্ডের নির্দেশ।

জাভা দ্বীপপুঞ্জের এক বাহিনীতে নিযুক্ত ছিলেন দু’জন। তাঁদের ‘অপরাধ’, তাঁরা দু’জনেই সমকামী। যৌনসম্পর্কে লিপ্তও হয়েছিলেন তাঁরা। সেই কারণে ৭ মাস কারাবাসের নির্দেশ দিল ইন্দোনেশিয়ার...

৮ বছরের বালককে গিলে খেল অতিকায় কুমির!

কুমিরের পেটে গেল ৮ বছরের জুলিয়ো ওতেরো ফার্নান্ডেজ। অসহায় হয়ে দাঁড়িয়ে দেখতে হল মা, বাবা, ভাইবোনেদের।ভাইবোনেদের সঙ্গে নদীর হাঁটুজলে নেমে মাছ ধরছিল জুলিয়ো। ভাইবোনেরা...

স্মার্ট মিটার’ বসতে চলেছে রাজ্যে

বুধবার বিধানসভার প্রশ্নোত্তর পর্বে অরূপ জানান, রাজ্যজুড়ে ৩৭ লক্ষ ‘স্মার্ট মিটার’ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। ধাপে ধাপে সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হবে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বসানো...

Recent Comments