Home উপকার মেলে প্রতিদিন হাঁটাহাঁটি করলে কত উপকার মেলে জানেন?

প্রতিদিন হাঁটাহাঁটি করলে কত উপকার মেলে জানেন?

বিশেষজ্ঞদের কথায়, বেশিরভাগ মানুষ জিমে গিয়ে ঘাম ঝরাতে অপারগ। তবে তাঁরা হাঁটতে তো পারবেন। কারণ হাঁটাতে তেমন একটা সমস্যা নেই। যে কোনও বয়সের মানুষ চলতে পারেন। শুধু হাঁটুর হাড় ক্ষয়ে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হয়। বাদবাকি সবাই হাঁটতে পারেন অনায়াসে।হাঁটা থেকে যদি উপকার পেতে হয়, তবে একটু ঘাম ঝরাতে হবে। আরাম করে আর হাঁটবেন না। বরং ব্রিকস ওয়াকিং করুন। ঘাম ঝরবে। একটু হাঁফ লাগবে। তবেই মিলবে কাঙ্খিত উপকার।

এখনকার দিনে মানুষের গড় আয়ু বেড়েছে। তবে জীবনের মান কিন্তু বাড়েনি। সেক্ষেত্রে স্ট্রোক, হার্টের অসুখ, হাই ব্লাড প্রেশার, ডায়াবিটিসের আশঙ্কা বৃদ্ধি পাবে। যদিও বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে এই অসুখগুলিকে প্রতিরোধ করতে পারে হাঁটা। বিশেষত, হার্টের খেয়াল রাখে।মনে রাখতে হবে যে হাঁটা গোটা শরীরের জন্য উপকারী। এক্ষেত্রে পেশি ও হাড়ের জোর বৃদ্ধি পায় কয়েকগুণ।

তাই নিয়মিত হাঁটতে তো হবেই। তবেই সুস্থ থাকবেন।মন ভালো রাখতে আপনি হাঁটুন। মস্তিষ্কে কিছু আরামদায়ক হরমোন বের হয়। এছাড়া দুশ্চিন্তা কমাতে চাইলেও আপনি হাঁটতে পারেন। আশা করছি অনায়াসে সমস্যা মেটাতে পারবেন।প্রতিবেদনটি সচেতনতার উদ্দেশ্যে লেখা হয়েছে। কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।প্রতিদিন হাঁটা খুবই জরুরি। আপনি এই কাজটা করতে পারলেই দেখবেন বহু অসুখ রয়েছে দূরে। তাই তো নিয়মিত হেলেদুলে হলেও দুই পায়ে এগিয়ে যেতে বলেন বিশেষজ্ঞরা। তবুও মানুষের হুশ নেই। সারাদিনে কিছুটা সময়ও তাঁরা বের করে উঠতে পারেন না।

Most Popular

পোস্ত কীভাবে এল? দেখুন বিস্তারিত

পেঁয়াজ বা রসুন ছাড়াই রান্না করা এই পদটি প্রতিটি বাঙালি পরিবারের সবচেয়ে সহজ, আরামদায়ক এবং প্রধান নিরামিষ খাবার। পোস্তবাঁটার (Posto Bata) অনন্য স্বাদ, কাঁচা...

রাস্তার ধারে গাছগুলিতে করা হয় সাদা রং ,তবে জানেন কি, কেনো করা হয় ?

রাস্তা দিয়ে পারাপার করার সময় চোখের সামনে অনেক কৌতূহল পূর্ণ জিনিসপত্র ধরা পড়ে। সেই সকল কৌতূহল জিনিসপত্র সম্পর্কে জানার ইচ্ছেও কম থাকে না। সেই...

মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের পর কেমন আছেন মুকুল রায়?

তাঁর মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করতে হল। আপাতত তিনি বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।সূত্রের খবর, ভুলে যাওয়া থেকে শুরু করে, ব্যালেন্সিংয়ের সমস্যা হচ্ছে প্রবীণ...

শিয়ালদহ মেন শাখায় ট্রেনের দুর্ভোগ বেশ কিছু দিন ধরেই চলছে,নাজেহাল যাত্রীরা।

সকাল ১০.৪০ মিনিটে ডাউন ভাগীরথী এক্সপ্রেস শিয়ালদহ পৌঁছানোর কথা থাকলেও, ওই ট্রেন এ দিন বিকেল চারটের পর গন্তব্যে পৌঁছোয়। ক্ষোভে ফেটে পড়েন যাত্রীরা। সকাল...

Recent Comments