Home আপনার বাচ্চা আপনার বাচ্চা কি পিত্‍জার জন্য রোজ বায়না করছে? তাহলে আর চিন্তা না...

আপনার বাচ্চা কি পিত্‍জার জন্য রোজ বায়না করছে? তাহলে আর চিন্তা না করে,এই ভাবে ঝটপট বানিয়ে দিন বান পিত্‍জা

স্বাস্থ্যকর উপাদান দিয়ে ঘরেই তৈরি করে নেওয়া যেতেই পারে বান পিত্‍জা। এর জন্য বার্গার বান অথবা সাধারণ বান নিতে হবে। আর লাগবে পিত্‍জা সস। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক, বাড়িতেই পিত্‍জা তৈরির প্রক্রিয়া।

উপকরণ:

৪ বান স্লাইস

২ টেবিল-চামচ মিহি করে কাটা টম্যাটো

২ টেবিল-চামচ মিহি করে কাটা ক্যাপসিকাম

২ টেবিল-চামচ মিহি করে কাটা পেঁয়াজ

১ টেবিল চামচ সেদ্ধ করা কর্ন

৩ টেবিল-চামচ মোত্‍জারেলা চিজ

৩-৪টি চিজ স্লাইস

লবণ পরিমাণ মতো

চিলি ফ্লেক্স

ওরিগ্যানো

আধ টেবিল-চামচ পিত্‍জা সস

প্রণালী :

প্রথমে একটি বড় বাটিতে টম্যাটো, ক্যাপসিকাম ও পেঁয়াজ কুচি এবং সেদ্ধ করা কর্ন ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে। তার মধ্যে এবার পিত্‍জা সস, চিজ, চিলি ফ্লেক্স, ওরিগ্যানো এবং স্বাদমতো লবণ যোগ করে তা ভাল ভাবে মেশাতে হবে।

এর পর বার্গারের বানের মাঝের অংশটি খালি করতে হবে। এর জন্য একটি কুকি কাটার অথবা একটি ধারালো ছুরি ব্যবহার করা যেতে পারে
বার্গারের মাঝখানের ফাঁকা অংশটায় একটি চিজ স্লাইস রাখতে হবে। এর পর এর মধ্যে পিত্‍জা টপিংস এবং মোত্‍জারেলা চিজ দিয়ে ভরাট করে দিতে হবে। এই বানকে একটি ছোট প্লেটে রাখতে হবে।একটি প্যান গরম করে তাতে একটি ছোট বাটি অথবা স্ট্যান্ড বসাতে হবে।

এবার বানের প্লেটটি প্যানের ওই স্ট্যান্ডের উপর রেখে দিতে হবে। চিজ গলে যাওয়া পর্যন্ত প্রায় ৭ থেকে ৮ মিনিট ঢেকে দিতে হবে।এর পরেই তৈরি হয়ে যাবে জিভে জল আনা পিত্‍জা। বাচ্চা যদি চিকেন খেতে ভালোবাসে, তাহলে বান পিত্‍জার টপিংয়ে চিকেনও যোগ করা যেতে পারে।

Most Popular

পোস্ত কীভাবে এল? দেখুন বিস্তারিত

পেঁয়াজ বা রসুন ছাড়াই রান্না করা এই পদটি প্রতিটি বাঙালি পরিবারের সবচেয়ে সহজ, আরামদায়ক এবং প্রধান নিরামিষ খাবার। পোস্তবাঁটার (Posto Bata) অনন্য স্বাদ, কাঁচা...

রাস্তার ধারে গাছগুলিতে করা হয় সাদা রং ,তবে জানেন কি, কেনো করা হয় ?

রাস্তা দিয়ে পারাপার করার সময় চোখের সামনে অনেক কৌতূহল পূর্ণ জিনিসপত্র ধরা পড়ে। সেই সকল কৌতূহল জিনিসপত্র সম্পর্কে জানার ইচ্ছেও কম থাকে না। সেই...

মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের পর কেমন আছেন মুকুল রায়?

তাঁর মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করতে হল। আপাতত তিনি বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।সূত্রের খবর, ভুলে যাওয়া থেকে শুরু করে, ব্যালেন্সিংয়ের সমস্যা হচ্ছে প্রবীণ...

শিয়ালদহ মেন শাখায় ট্রেনের দুর্ভোগ বেশ কিছু দিন ধরেই চলছে,নাজেহাল যাত্রীরা।

সকাল ১০.৪০ মিনিটে ডাউন ভাগীরথী এক্সপ্রেস শিয়ালদহ পৌঁছানোর কথা থাকলেও, ওই ট্রেন এ দিন বিকেল চারটের পর গন্তব্যে পৌঁছোয়। ক্ষোভে ফেটে পড়েন যাত্রীরা। সকাল...

Recent Comments