Home Malda স্নায়ু রোগে আক্রান্ত বছর ৭-এর শিশু, নেই স্বাস্থ্যসাথী ; অর্থাভাবে বন্ধ চিকিৎসা

স্নায়ু রোগে আক্রান্ত বছর ৭-এর শিশু, নেই স্বাস্থ্যসাথী ; অর্থাভাবে বন্ধ চিকিৎসা

হরিশ্চন্দ্রপুর, ৬ অগষ্ট : জটিল স্নায়ু রোগে আক্রান্ত ৭ বছরের শিশু । অর্থাভাবে হচ্ছে না চিকিৎসা । নেই স্বাস্থ্য সাথী কার্ড । সরকারের কাছে সাহায্যের কাতর আর্জি জানিয়েছে পরিবার । ঘটনাটি মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর-১ নম্বর ব্লকের মহেন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ।

 

 

 

 

জানা যায়, দীর্ঘ ছয় বছর ধরে স্নায়ু রোগে আক্রান্ত হয়ে বিছানায় শয্যাসায়ী মহেন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের গাঙ্গনদীয়া গ্রামের বাসিন্দা মহম্মদ মুসাব্বি । বয়স ৭ । বাবা দিনমজুর হেদাতুল ইসলাম । টাকার অভাবে থমকে রয়েছে ছেলের চিকিৎসা । এরফলে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে মহম্মদ মুসাব্বি । প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট থাকলেও মিলছে না ভাতা । হয়নি স্বাস্থ্য সাথী কার্ড‌ও । সরকারি সাহায্যের আশায় চেয়ে আছে পরিবার ।

 

 

 

 

 

অন্যদিকে, এই ঘটনায় শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা । কংগ্রেস কটাক্ষ করছে তৃণমূলকে । প্রশাসনের পক্ষ থেকে কার্ডের ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে ।

 

 

 

 

শিশুটির মা আজমেরী বিবি জানান, তাঁর দুই ছেলে ও এক মেয়ে । স্বামী দিনমজুর । মহম্মদ মুসাব্বি ছোট ছেলে । শিশুটি সুস্থ স্বাভাবিক ভাবে জন্ম হলেও জন্মের একবছর পর ডায়েরিয়া হয়ে যায় । এরপর থেকে শরীরে অসুখ বাসা বাঁধতে থাকে । শরীর ধীরে ধীরে অবশ হয়ে যায় । হাত পা সরু হয়ে যায় । মাথা স্বাভাবিকের তুলনায় বড়ো হতে থাকে । সব সময় বিছানায় শয্যাসায়ী হয়ে থাকে । একা চলাফেরা করতে পারে না । মালদা ও কলকাতায় চিকিৎসা করাতে নিয়ে গেলেও টাকার অভাবে দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা করাতে পারেনি । ছেলেকে সুস্থ করে তুলতে যথেষ্ট টাকার প্রয়োজন । দিনমজুর স্বামীর পক্ষে এত টাকা জোগাড় করা সম্ভব না । তাই সরকারি সাহায্যের আশায় চেয়ে রয়েছি ।

 

 

হরিশ্চন্দ্রপুর ১ ব্লক বিডিও অনির্বাণ বসু বলেন, “ঘটনাটি জানতে পারলাম । খুব দুঃখজনক । আমাদের কাছে আবেদন করলে আমরা তড়িঘড়ি ব্যবস্থা করে দেব । শিশুটির দ্রুত আরোগ্য এবং সুস্বাস্থ্য কামনা করছি ।”

 

 

 

 

কংগ্রেসের অঞ্চল সভাপতি আব্দুস শোভান তীব্র কটাক্ষের সুর চড়িয়ে বলেন,” তৃণমূলের আমলে যারা কাটমানি দিতে পারবে তাদেরই শুধু কাজ হবে । এই পরিবারটি গরিব. দিতে পারেনি । তাই কাজ হয়নি । মুখ্যমন্ত্রীর স্বাস্থ্য সাথী কার্ড আছে । এমনকি বড় বড় নেতা মন্ত্রীদেরও এই কার্ড আছে । কিন্তু গরিব মানুষের নেই। এটাই এই সরকারের বাস্তব চিত্র । মানুষ আশা করি সবটা বুঝছে । আমরা ঐ পরিবারের পাশে থাকার চেষ্টা করব ।”

 

 

 

 

 

পাল্টা তৃণমূল নেতা সঞ্জীব গুপ্তা বলেন, “সংবাদ মাধ্যমের দ্বারা বিষয়টি শুনতে পেলাম । দুয়ারে সরকার প্রকল্প তে যারা আবেদন করেছে সকলে পেয়েছে । ওই পরিবারটি যদি না পেয়ে থাকে ব্যাপারটি দেখা হবে । স্বাস্থ্য সাথী কার্ডের ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে । মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর আমলে সকল রাজ্যবাসী এই সুবিধা পাচ্ছে ।” কংগ্রেসের প্রত্যুত্তরে তিনি বলেন, “মিথ্যা সমালোচনা করাই এদের কাজ । কংগ্রেস নেতারা কার্ড না পেয়ে থাকলে আমরা কার্ড করে চিকিৎসার ব্যবস্থাও করিয়ে দেব ।”

 

 

 

 

 

তবে এই ধরনের ঘটনা হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকায় বারবার দেখা যাচ্ছে । গরিব পরিবারের মানুষেরা জটিল রোগে আক্রান্ত । কিন্তু তাদের থাকছেনা স্বাস্থ্যসাথী কার্ড । পয়সার অভাবে করাতে পারছে না চিকিৎসা । যা অত্যন্ত দুঃখজনক । প্রশাসনের উচিত সরকারি প্রকল্পের সুবিধা যাতে সমাজের সব স্তরের মানুষ পায় তার জন্য তৎপর হওয়া । এই অসহায় পরিবারের পাশে দ্রুত দাঁড়ানো ।

Most Popular

বিয়ের আগে কিয়ারাকে নিয়ে এ কী বললেন সিড ?

সিড-কিয়ারার প্রেমের গুঞ্জন বহু দিন ধরেই চলছিল বলিউডে৷ কিন্তু কেউই কখনও প্রকাশ্যে এ বিষয়ে মুখ খোলেননি৷ অবশেষে বাজল সানাই৷ আগামী সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি জয়সলমেরে...

বইমেলায় নিজের লেখা জেরক্স করে বিক্রি করছেন মাত্র 5 টাকায়।

মুঠোফোনের পাতায় যতই আমরা প্রতিভাবান শিল্পীদের পরিচয় পাই না কেন, এমন অনেক ঘটনা থেকে থাকে যা আমাদের বাস্তব জীবনে সামনে থেকে উপলব্ধি করতে হয়।বর্তমানে...

দেওয়াল খুঁড়তেই বেরিয়ে এল ৪৭ লক্ষ টাকা, কি করলেন সেই টাকা দিয়ে?

একটি পুরনো বাড়ি ভাঙতে গিয়ে দেওয়ালের মধ্যে লুকনো ৬টি টিনের কৌটো উদ্ধার করেছেন সে দেশের এক ব্যবসায়ী। সেই কৌটো থেকে তিনি উদ্ধার করেন ৪৭...

আফ্রিকা মহাদেশের দক্ষিণ এর বোদি উপজাতির নারীদের মেদবহুল পুরুষ পছন্দ

ইথিওপিয়ার দক্ষিণে ওমো উপত্যকার প্রত্যন্ত অঞ্চলে বাস বোদি উপজাতির। সেই উপজাতির মহিলাদের পছন্দ গোল ভুঁড়িযুক্ত পুরুষেরা।পৃথিবীতে এমনও উপজাতি রয়েছে যেখানে সুঠাম চেহারা নয়, বরং...

Recent Comments