Home আজকের খবর অসহায় পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস

অসহায় পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস

ভিন রাজ্যে কাজ করতে গিয়ে রহস্য মৃত্যু হয় ছেলের। পরিবারের লোক অভিযোগ করে যে ঠিকাদারের অধীনে কাজ করতো সেই ঠিকাদারই খুন করেছে তাকে। সুবিচারের জন্য প্রশাসনকে জানায় তারা। কিন্তু এখনো পর্যন্ত প্রশাসন কোনো হস্তক্ষেপ করেনি। এদিকে রোজগেরে ছেলের মৃত্যুর পর প্রচণ্ড দুর্দশার মধ্যে দিয়ে দিন কাটছে পরিবারের। মেলেনি কোন সরকারি সাহায্য বা স্থানীয় কোন জনপ্রতিনিধিও পাশে এসে দাঁড়ায়নি। একে ছেলে হারানোর শোক তারপর আবার দারিদ্রতা। সরকারি সাহায্যের আশায় বসে আছে অসহায় বাবা মা।

মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার মালিওর গ্রাম পঞ্চায়েতের শামুখা গ্রামের যুবক বংশীলাল মন্ডল। হরিয়ানার কাটলা এলাকায় একটি কাঠ চেরাই মিলে কাজ করত সে। কাজের বেতন নিয়ে মালিকপক্ষের সঙ্গে ঝামেলা চলছিল তার।ঠিকঠাক পারিশ্রমিক না মেলায় বাড়ি চলে আসতে চেয়েছিল সে। কিন্তু বাড়ি ফেরা হয়নি বংশীলালের। গত ৮ ই অক্টোবর সেখানকারই রেললাইনে তার মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃত্যুর খবর বাড়িতে আসে। পরিবারের লোকজন অভিযোগ করে খুন করা হয়েছে তাদের ছেলেকে।কারণ যে ঠিকাদারের অধীনে কাজ করতো বংশীলাল, সে কিছুদিন ধরে খুনের হুমকি দিয়েছিল তাকে। পরিবারের লোক প্রশাসনের কাছে সুবিচারের দাবি জানায়। কিন্তু তারপর কেটে গেলো এক সপ্তাহ। সুবিচার দূরের কথা প্রশাসনিক কোন হস্তক্ষেপে এখনো হয়নি বলে জানিয়েছে পরিবারের লোকেরা। এদিকে এইভাবে রোজগেরে ছেলের হঠাৎ মৃত্যুর পর প্রচণ্ড দুর্দশার মধ্যে দিয়ে দিন কাটছে এই পরিবারের। কিন্তু পাশে এসে দাঁড়ায়নি কোন জনপ্রতিনিধিও। মেলেনি কোনরকম সরকারি সাহায্য বা সাহায্যের আশ্বাস। এই মুহূর্তে সরকার তাদের পাশে না দাঁড়ালে তাদের পক্ষে দিনযাপন করা খুব সমস্যা হয়ে যাবে বলে জানিয়েছে পরিবারের লোকেরা। স্থানীয় ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা অজিত কুমার সাহা এই পরিবারের লোকেদের সঙ্গে দেখা করতে যান। তিনিও প্রশাসনিক উদাসীনতার কথা বলেন। যদিও তৃণমূলের জেলা সাধারণ সম্পাদক বুলবুল খান জানিয়েছেন তিনি এই পরিবারের পাশে দাঁড়াবেন।

অসহায় পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস ( মালদা )

অসহায় পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস ( মালদা )

Gepostet von ACN Life News am Donnerstag, 15. Oktober 2020

পুত্রশোকে বিহ্বল বংশিলালের বাবা মহাবীর মন্ডল বলেন,”আমার ছেলে যেতে চেয়েছিল না জোর করে কাজে নিয়ে গিয়েছিল স্থানীয় যুবক ছোট্টু মন্ডল। যে ঠিকাদারের অধীনে কাজ করত তারাই খুন করেছে ছেলেকে। আমরা সুবিচার চাই। প্রশাসনকে জানিয়েছি। কিন্তু এখনও পর্যন্ত প্রশাসন কোনো হস্তক্ষেপ করেনি। আমাদের আর্থিক অবস্থাও ভাল নয়। ছেলের মৃত্যুর পর সংসার কিভাবে চলবে এই নিয়ে ভেবে কুল পাচ্ছিনা।”

বংশী লালের দিদি মঞ্জু মণ্ডল বলেন,”কাজ করতে গিয়ে আমার ভাইয়ের মৃত্যু হলো। প্রচন্ড অসহায় অবস্থার মধ্যে দিয়ে দিন কাটছে আমাদের। কিন্তু কেউ পাশে এসে দাঁড়াচ্ছে না। আমরা চাইছি আমার ভাই সুবিচার পাক এবং সরকার যাতে আমাদের পাশে দাঁড়াই। নাতো দিন গুজরান করা খুব কষ্টকর হয়ে যাবে বাবা-মায়ের কাছে।”

ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা অজিত কুমার সাহা বলেন,”আমাদের তো এই মুহূর্তে তেমন কোনো ক্ষমতা নেই। তবে চেষ্টা করবো এদের পাশে থাকার। সাথেই প্রশাসনিক উদাসীনতা নিয়ে সওয়াল করেন তিনি। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদেরদেরও তোপ দাগেন।”

তৃণমূল নেতা তথা জেলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক বুলবুল খান বলেন,”আমি আমার কাজ নিয়ে কয়দিন একটু ব্যস্ত ছিলাম। সংবাদমাধ্যমের কাছ থেকে খবরটা জানতে পারলাম। যেভাবে আমি মানুষের পাশে দাঁড়ায় এই পরিবারের পাশে গিয়ে দাঁড়াবো। সব রকম ভাবে ওদের সাহায্য করবো। ”

কাজ করতে গিয়ে মৃত্যু হলো ছেলের। ছেলের ফটো বুকে করে কেঁদে ভাসাচ্ছে মা। সুবিচারের আশায় বসে আছে অসহায় বৃদ্ধ বাবা। এখন কবে এদের সুবিচার মেলে কবেই বা প্রশাসন পাশে দাঁড়ায় অসহায় এই পরিবারের এটাই দেখার।

Most Popular

দশমীর রাত্রে চুরি করতে এসে আটক হল চোর

ঘটনাটি হলদিয়ার ভবানীপুর থানা এলাকার।মণ্ডপে মণ্ডপে মায়ের বিদায়ের প্রস্তুতি। সেখানেই সকলের মন। সেই সুযোগকেই কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছিল একদল যুবক। দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে...

Hero লঞ্চ করল আকর্ষণীয় দামে বাজারে নতুন Electric Cycle

ইলেকট্রিক গাড়ি এবং বাইকের এখনও আকাশছোঁয়া দাম। যা কিনা অনেক মধ্যবিত্তেরই নাগালের বাইরে। ফলে তাঁদের বিকল্প হিসেবে রয়েছে ইলেকট্রিক সাইকেল ।বেশি সমস্যায় পড়ছেন মধ্যবিত্ত...

নবমীতে টিকিট কেটে কোটিপতি নদিয়ার যুবক

কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন তিনি দেখতেন দীর্ঘদিন ধরেই। আর এই কারণে অন্যতম 'শর্টকাট' হিসেবে তিনি বেছে নিয়েছিলেন লটারি কেনাকে। আনারুল জানান, একসময় লটারি কাটতে গিয়ে...

এটিই হল ভারতের দীর্ঘতম নামের রেল স্টেশন

প্রতিদিন যে বিশাল সংখ্যক যাত্রী রেল পরিষেবা ব্যবহার করে থাকেন, তাঁদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে রেলের তরফেও নেওয়া হয় নানা রকমের পদক্ষেপ। এমনকি বিগত...

Recent Comments