Home আজকের খবর পাশে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক

পাশে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক

লকডাউনে ব্যাঙ্গালোর থেকে পায়ে হেঁটে আহত অবস্থায় বাড়ি ফিরে পাঁচ মাস ধরে গুরুতর অসুস্থ ধর্মরাজ।

প্রায় ৫ মাস আগে ভিন রাজ্যে কাজ করতে গিয়ে আহত হয় মালদার মানিকচকের ধর্মরাজ মন্ডল । ৫ মাস ধরে সঠিক চিকিৎসা না হওয়ায় বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক ,ডান পায়ে পাচন ধরেছে l এমত অবস্থায় পাশে দাঁড়িয়েছে মানিকচক ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক ও সহমর্মী নামে এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ।

জানাযয় শৈশবকালে বাবা কে হারিয়েছে ধর্মরাজ , তারপর থেকেই মা জ্যোৎস্না দেবী কোন ভাবে সংসার চালিয়েছে । মা খুব কষ্টে পড়াশোনা করেছিল ধর্মরাজ কে মাধ্যমিক পর্যন্ত। এরপর পরিবারের চাহিদা মিটাতে ব্যাঙ্গালোরে কাজ করতে চলেযান । ধর্মরাজ সেখানে গিয়ে গত পাঁচ মাস আগে পথ দুর্ঘটনায় আহত হয়। ব্যাঙ্গালোরে প্রাথমিক চিকিৎসা পর লকডাউনের মধ্যে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হয়ে কোনভাবে বাড়ি ফিরে আসে ধর্মরাজ । বাড়ি ফিরে সঠিক চিকিৎসা না হওয়ায় ধীরে ধীরে ডান পায়ে পাচন ধরে । পরিবারের আর্থিক অবস্থা খুব খারাপ হওয়ার জন্য উন্নত মানের চিকিৎসা হয়নি । বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। ঘটনার খবর পেয়ে মানিকচক ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক ও সহমর্মী ফাউন্ডেশন পাশে দাঁড়ায়।

স্বাস্থ্য আধিকারিক নিজে তার বাড়িতে গিয়ে ধর্মরাজের শারীরিক অবস্থা দেখেন । অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে মানিকচক গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায় সেখানে গিয়ে প্রাথমিক ভাবে তার চিকিৎসা করা হয় এবং জরুরি ওষুধ দেওয়া হয় হাসপাতালে পক্ষ থেকে । অবস্থার অবনতি হলে তাকে মালদা মেডিকেল কলেজে বা কোলকাতা রেফার করা হবে বলে জানিয়েছে মানিকচক ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক ।

পাশে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক ( মালদা )

পাশে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক ( মালদা )

Gepostet von ACN Life News am Donnerstag, 3. September 2020

এই বিষয়ে ধর্মরাজের মা জ্যোৎস্না মণ্ডল জানান প্রায় সতের আঠারো বছর আগে ধর্মরাজের বাবা পশুপতি মন্ডল মারা যায়। তারপর থেকেই সংসার কোনভাবে দিনমজুরের চালাই আমি। ধর্মরাজ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার পর ব্যাঙ্গালোরে দিনমজুরের কাজ করতে যায় ,সেখানে সে পথ দুর্ঘটনায় আহত হয় । লকডাউনের মধ্যে আহত পায়ে নিয়ে পথ হেঁটে ও কয়েকটি গাড়ি পরিবর্ত করে কোন ভাবে বাড়ি ফিরে আসে।

পাঁচ মাস ধরে বাড়িতে অসুস্থ অবস্থায় থাকায় এবং আর্থিক অবস্থা আমাদের খুব খারাপ থাকার জন্য তাকে উন্নত মানের চিকিৎসা করাতে পারেনি। সরকারের কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি আমার ছেলেকে চিকিৎসা করিয়ে সুস্থ করার হক । আজ তাকে একটি স্বেচ্ছা সেবি সংগঠন হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ছিল।

এ বিষয়ে মানিকচক ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ হে নারায়ন ঝা জানান এলাকার একটি স্বেচ্ছা সেবী সংগঠনের সদস্যদের কাছ থেকে ধর্মরাজের ব্যাপারে জানতে পারি তারপর আমরা তার বাড়িতে গিয়ে শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিয়েছি । তাকে হাসপাতালে নিয়ে আশা হয়েছিল চিকিৎসা করা হয়েছে । জরুরি ওষুধ পত্র দেওয়া হয়েছে পরিস্থিতি বুঝে তাকে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো বা কোলকাতা পাঠানো হবে ।

Most Popular

বিয়ের আগে কিয়ারাকে নিয়ে এ কী বললেন সিড ?

সিড-কিয়ারার প্রেমের গুঞ্জন বহু দিন ধরেই চলছিল বলিউডে৷ কিন্তু কেউই কখনও প্রকাশ্যে এ বিষয়ে মুখ খোলেননি৷ অবশেষে বাজল সানাই৷ আগামী সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি জয়সলমেরে...

বইমেলায় নিজের লেখা জেরক্স করে বিক্রি করছেন মাত্র 5 টাকায়।

মুঠোফোনের পাতায় যতই আমরা প্রতিভাবান শিল্পীদের পরিচয় পাই না কেন, এমন অনেক ঘটনা থেকে থাকে যা আমাদের বাস্তব জীবনে সামনে থেকে উপলব্ধি করতে হয়।বর্তমানে...

দেওয়াল খুঁড়তেই বেরিয়ে এল ৪৭ লক্ষ টাকা, কি করলেন সেই টাকা দিয়ে?

একটি পুরনো বাড়ি ভাঙতে গিয়ে দেওয়ালের মধ্যে লুকনো ৬টি টিনের কৌটো উদ্ধার করেছেন সে দেশের এক ব্যবসায়ী। সেই কৌটো থেকে তিনি উদ্ধার করেন ৪৭...

আফ্রিকা মহাদেশের দক্ষিণ এর বোদি উপজাতির নারীদের মেদবহুল পুরুষ পছন্দ

ইথিওপিয়ার দক্ষিণে ওমো উপত্যকার প্রত্যন্ত অঞ্চলে বাস বোদি উপজাতির। সেই উপজাতির মহিলাদের পছন্দ গোল ভুঁড়িযুক্ত পুরুষেরা।পৃথিবীতে এমনও উপজাতি রয়েছে যেখানে সুঠাম চেহারা নয়, বরং...

Recent Comments