Home খবর ভাইয়ের জন্যই বেঁচে গেল রাখীর সংসারটা’।

ভাইয়ের জন্যই বেঁচে গেল রাখীর সংসারটা’।

প্রথমে নিকাহ অস্বীকার করলেও সম্প্রতি ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে সংবাদ মাধ্যমের কাছে রাখিকে বউ হিসাবে মেনে নিয়েছেন তিনি। হঠাৎ এত পরিবর্তন কীভাবে? রাখির কথাতেই হল এবার স্পষ্ট হল সবকিছু।তাঁকে স্ত্রী হিসাবে মেনে নিয়েছেন আদিল খান দুরানি (Adil Khan Durani)। এক বলিউড সুপারস্টারের বোঝানোতেই নাকি নিকাহ মেনে নিয়েছেন তিনি। সেই সুপারস্টার আর কেউ নয়, খোদ সলমন খান (Salman Khan)। তাঁর এক ফোনেই নাকি নিজের মত বদলান আদিল।

তারপরেই সর্বসমক্ষে স্বীকৃতি দেন রাখিকে। সম্প্রতি পাপারাৎজির সামনে একথা জানিয়েছেন অভিনেত্রী নিজেই।এর আগে তাঁর মায়ের অসুস্থতার সময়ে আর্থিক সাহায্য নিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছিলেন সলমন এবং তাঁর ভাই সোহেল খান। এবারেও রাখির বিপদের সময়ে পাশে দাঁড়ালেন ভাইজান।সম্প্রতি আদিলকে সঙ্গে নিয়ে পাপারাৎজির মুখোমুখি হন রাখি। ক্যামেরার সামনে তিনি বলেন, ‘ভাই (সলমন খান) ওকে খুব ভালবাসেন। ভাইয়ের সঙ্গে আলাপও হয়েছে।

নিশ্চয়ই ভাইয়ের ফোন এসেছিল’। এরপরেই রাখি বলেন, ‘ভাই থাকতে কি আর বোনের সঙ্গে বিয়ে অস্বীকার করতে পারে? ভাইয়ের ফোন আসলে তবেই তো কিছু হবে তাই না?’আদিল বলেন, তাঁর পরিবার এখনো মেনে নিতে পারেনি রাখিকে। তবে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চলছে এখনো। সেই কারণেই এতদিন নিকাহ মানছিলেন না তিনি।আদিলও স্বীকার করেন, সলমন ফোন করেছিলেন তাঁকে। অভিনেতার প্রশংসা করে তিনি বলেন, উনি খুবই ভদ্র, নম্র একজন মানুষ। কিছু কথা তিনি আদিলকে বলেন ফোন করে। শুনেই রাখির মন্তব্য, ‘আমার দাদা সলমন আমার সংসারটা বাঁচিয়ে দিলেন’।

Most Popular

পোস্ত কীভাবে এল? দেখুন বিস্তারিত

পেঁয়াজ বা রসুন ছাড়াই রান্না করা এই পদটি প্রতিটি বাঙালি পরিবারের সবচেয়ে সহজ, আরামদায়ক এবং প্রধান নিরামিষ খাবার। পোস্তবাঁটার (Posto Bata) অনন্য স্বাদ, কাঁচা...

রাস্তার ধারে গাছগুলিতে করা হয় সাদা রং ,তবে জানেন কি, কেনো করা হয় ?

রাস্তা দিয়ে পারাপার করার সময় চোখের সামনে অনেক কৌতূহল পূর্ণ জিনিসপত্র ধরা পড়ে। সেই সকল কৌতূহল জিনিসপত্র সম্পর্কে জানার ইচ্ছেও কম থাকে না। সেই...

মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের পর কেমন আছেন মুকুল রায়?

তাঁর মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করতে হল। আপাতত তিনি বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।সূত্রের খবর, ভুলে যাওয়া থেকে শুরু করে, ব্যালেন্সিংয়ের সমস্যা হচ্ছে প্রবীণ...

শিয়ালদহ মেন শাখায় ট্রেনের দুর্ভোগ বেশ কিছু দিন ধরেই চলছে,নাজেহাল যাত্রীরা।

সকাল ১০.৪০ মিনিটে ডাউন ভাগীরথী এক্সপ্রেস শিয়ালদহ পৌঁছানোর কথা থাকলেও, ওই ট্রেন এ দিন বিকেল চারটের পর গন্তব্যে পৌঁছোয়। ক্ষোভে ফেটে পড়েন যাত্রীরা। সকাল...

Recent Comments